নেত্রকোনাঃ দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নেত্রকোনার ৫টি আসনের মনোনয়ন পত্র যাচাই বাছাই কার্যক্রমে স্বতন্ত্র (আওয়ামী লীগের) প্রার্থী সহ মোট ১৩ জনের মনোনয়ন পত্র বাতিল ও আওয়ামীলীগের ৫ প্রার্থীসহ মোট ২৩ জন প্রার্থীকে বৈধ  হিসেবে ঘোষণা করেছেন নেত্রকোনা জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা।

রবিবার সকাল ১০টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত চলে মনোনয়ন পত্র যাচাই বাছাইয়ের এর কার্যক্রম। এ সময় প্রার্থীদের দাখিলকৃত মনোনয়ন পত্রে প্রার্থী ও প্রস্তাবকারী, সমর্থনকারীর স্বাক্ষর না থাকা, স্বতন্ত্র প্রার্থীদের ক্ষেত্রে ১ শতাংশ ভোটারের স্বাক্ষর বা টিপসহি না থাকা, ঋণ খেলাপী, বিল খেলাপীর কারণে নেত্রকোনা-১ (দূর্গাপুর-কলমাকান্দা) আসনে স্বতন্ত্র সহ বাতিল হয় ২ জন, নেত্রকোনা-২ ( সদর-বারহাট্টা) আসনে ৩ জন, নেত্রকোনা-৩ (আটপাড়া-কেন্দুয়া) আসনে ৩ জন, নেত্রকোনা-৪ (মদন, মোহনগঞ্জ ও খালিয়াজুরী) আসনে ২ জন এবং নেত্রকোনা-৫ (পূর্বধলা) আসনে ৩ জন সহ মোট ৫ টি আসনে স্বতন্ত্রসহ বিভিন্ন দলের ১৩ জন প্রার্থীর মনোনয়ন বাতিল ঘোষণা করেন জেলা রির্টানিং কর্মকর্তা শাহেদ পারভেজ।

বাতিলকৃত প্রার্থীরা হলেন নেত্রকোনা-১ (কলমাকান্দা -দুর্গাপুর) আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী কলমাকান্দ উপজেলার রংছাতি ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি আফতাব উদ্দিন ও জাকের পার্টির প্রার্থী মোঃ ছমির উদ্দিন। নেত্রকোনা-২ (সদর-বারহাট্টা) আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থী সুব্রত সরকার, ন্যাশনাল পিপলস্ পার্টির মোঃ আমজাদ হোসেন ঠাকুর, বাংলাদেশ কংগ্রেসের মাজহারুল ইসলাম খান। নেত্রকোনা-৩ (কেন্দুয়া-আটপাড়া) আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী আওয়ামী লীগ নেতা সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী মোঃ আব্দুল মতিন, ন্যাশনাল পিপলস্ পার্টির প্রার্থী আসাদুজ্জামান খান ও কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের প্রার্থী রিগ্যান আহমেদ।

নেত্রকোনা-৪ (মদন-মোহনগঞ্জ-খালিয়াজুরী) আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী নব্বইয়ের গণআন্দোলনের অন্যতম নেতা শফী আহমেদ ও তৃণমূল বিএনপির প্রার্থী মোহাম্মদ আল মামুন। নেত্রকোনা-৫ (পূর্বধলা) আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক মোঃ আনোয়ার হোসেন, স্বতন্ত্র প্রার্থী আওয়ামী লীগ নেতা মোঃ মিছবাহুজ্জামান চন্দন ও যুবলীগ নেতা মোঃ মাজহারুল ইসলাম সোহেল ফকির।

মনোনয়নপত্র বৈধ প্রার্থীরা হলেন, নেত্রকোনা-১ (কলমাকান্দা-দূর্গাপুর) আসনে আওয়ামীলীগের প্রার্থী মোশতাক আহমেদ রুহী, জাতীয় পার্টির প্রার্থী গোলাম রব্বানী, বাংলাদেশে সাংস্কৃতিক জোটের প্রার্থী আহমদ শফি, স্বতন্ত্র প্রার্থী জান্নাতুল ফেরদৌস আরা।

নেত্রকোনা-২ (সদর-বারহাট্টা) আসনে আওয়ামীলীগের প্রার্থী সমাজ কল্যাণ প্রতিমন্ত্রী বীর মুক্তিযোদ্ধা আশরাফ আলী খান খসরু, জাতীয় পার্টির মোছাঃ রহিমা আক্তার আসমা সুলতানা, জাকের পার্টির মানিক চন্দ্র সরকার, ইসলামী ঐক্যজোট প্রার্থী মোঃ ইলিয়াস, বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী আন্দোলন (বিএনএম) প্রার্থী এ বি এম রফিকুল হক তালুকদার, স্বতন্ত্র প্রার্থী সাবেক যুব ও ক্রীড়া উপমন্ত্রী আরিফ খান জয়।

নেত্রকোনা-৩ (আটপাড়া-কেন্দুয়া) অসীম কুমার উকিল, জাতীয় পার্টির জসীম উদ্দিন ভঁ‚ইয়া, জাকের পার্টির মোঃ সুরুজ আলী, ইসলামী ঐক্যজোটের প্রার্থী মোঃ এহ্তেসাম সারওয়ার, তৃণমূল বিএনপির মিজানুর রহমান খান, স্বতন্ত্র হিসেবে সাবেক সংসদ সদস্য ইফতিখার উদ্দিন তালুকদার পিন্টু ও সাবেক সংসদ সদস্য মঞ্জুর কাদের কোরাইশী।

নেত্রকোনা-৪ (মদন-মোহনগঞ্জ-খালিয়াজুড়ি) আসনে আওয়ামীলীগের প্রার্থী সাজ্জাদুল হাসান, জাতীয় পার্টির লিয়াকত আলী খান এডভোকেট, জাসদের মোঃ মুশফিকুর রহমান।

নেত্রকোনা-৫ (পূর্বধলা) আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী আহমদ হোসেন, জাতীয় পার্টির ওয়াহিদুজ্জামান আজাদ, তৃণমূল বিএনপির প্রার্থী আব্দুল ওয়াহাব হামিদী।


নয়ন বর্মন

নেত্রকোনা প্রতিনিধি